× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

ফেনীতে চুরির ভিডিও করায় খুন হন গৃহবধূ পারুল, গ্রেপ্তার ৩

ফেনী প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৩:৩১ পিএম

আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৩:৩৩ পিএম

গ্রেপ্তার আসামিরা। প্রবা ফটো

গ্রেপ্তার আসামিরা। প্রবা ফটো

ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের বারাহীগুনী এলাকায় চুরির ভিডিও ধারণ করায় খুন করা হন গৃহবধূ পারুল আক্তার। আলোচিত এ ঘটনায় গ্রেফতার মোবারক হোসেন নামের এক আসামিকে সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে হত্যার বিবরণ দেন। মোবারক হোসেন লক্ষ্মীপুরের টুমচর এলাকার বাদশার বাপের বাড়ির মঈন উদ্দিনের ছেলে। বেশ কিছুদিন যাবৎ সে ফেনী সদর উপজেলার মাথিয়ারা জেলে বাড়ির প্রবাসী তারেকের বাসায় বসবাস করে আসছে। 

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ১৩ ডিসেম্বর রাতে উত্তর বারাহীগুনী সামছুল হক ভূঞা বাড়ির নিজ ঘর থেকে পারুল আক্তার নামের এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত পারুল আক্তার ওই বাড়ির প্রবাসী আতাউর রহমানের স্ত্রী ও জায়লস্কর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মতিন চৌধুরীর ছোট বোন। এ ঘটনায় পরের দিন অজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা রেকর্ড হয়। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার কোন কারণ অথবা সম্পৃক্ত কাউকে অভিযুক্ত করতে পারেনি নিহতের পরিবার ও স্বজনরা। 

রবিবার রাতে সদর উপজেলার মাথিয়ারা জেলে বাড়ি থেকে মোবারক হোসেন নামের এক যুবককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। একপর্যায়ে ওই যুবক ঘটনার বিস্তারিত জানালে পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করে। পরে সে আদালতে ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে ঘটনায় সম্পৃক্ত আরও দুই জনের নাম জানায়।

মোবারক হোসেন জানান, ওই রাতে তারা ৩ জন পারুলের ঘরে চুরি করতে যান। বিষয়টি টের পেয়ে পারুল তার মোবাইলে ভিডিও করতে থাকে। এটা দেখে মোবারকসহ তার সঙ্গীরা মোবাইলটি ছিনিয়ে নিতে জোরজবরদস্তি শুরু করে। মোবাইলটি নিতে না পেরে তার মাথায় আঘাত করে। এতে পারুল বেগমের মৃত্যু হলে তারা পালিয়ে যায়। 

মোবারকের স্বীকারোক্তিতে সোমবার অন্য দুই আসামিকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলো- সদর উপজেলার পাঁচগাছিয়া ইউনিয়নের মাথিয়ারা আফজল মিস্ত্রি বাড়ির ইহাব হোসেন শুভ ও ঘটনাস্থল সংলগ্ন উত্তর বারাহীগুনী এলাকার বাসিন্দা আব্দুল আউয়াল ওরফে সাদ্দাম।

ওসি আবুল হাসিম বলেন, ‘জায়লস্কর ইউনিয়নের আলোচিত গৃহবধূ পারুল হত্যাকান্ডে সন্দেহভাজন আসামি মোবারক আদালতে স্বীকারোক্তি দেন। স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে শুভ ও সাদ্দাম নামের আরও দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) তাদের আদালতে হাজির করা হবে।’  

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা