× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

রাঙামাটি

কেন্দ্রে ভোটার আনাই বড় চ্যালেঞ্জ

রিকোর্স চাকমা, রাঙামাটি

প্রকাশ : ০৬ জানুয়ারি ২০২৪ ২৩:০৯ পিএম

আপডেট : ০৬ জানুয়ারি ২০২৪ ২৩:২৪ পিএম

কেন্দ্রে ভোটার আনাই বড় চ্যালেঞ্জ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পার্বত্য জেলা রাঙামাটি আসনের তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও শেষ মুহূর্তে আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থী দীপংকর তালুকদারকে জনসংযোগে ব্যস্ত দেখা গেছে। তবে অনেকটা নীরব অন্য দুই প্রার্থী বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের মনোনীত ছড়ি প্রতীকের অমর কুমার দে ও তৃণমূল বিএনপির মনোনীত সোনালী আঁশ প্রতীকের প্রার্থী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

তাই শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি বড় চ্যালেঞ্জ হিসেবে সামনে এসেছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সহসভাপতি ঊষাতন তালুকদার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে দাঁড়ানোয় শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বীর অভাব দেখা দিয়েছে। তাই ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার আশঙ্কা করছেন অনেকে।

রাঙামাটি জেলার ১০টি উপজেলা ও দুটি পৌরসভা নিয়ে রাঙামাটি ২৯৯ নম্বর আসন গঠিত। আঞ্চলিক দল জেএসএসের প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করায় নির্বাচনের প্রতিযোগিতা কমে গেছে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী দীপংকর তালুকদারের প্রচার-প্রচারণা ছাড়া অন্য দুইজন প্রার্থীর চোখে পড়ার মতো কোনো প্রচারণা নেই। 

সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) রাঙামাটি জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এম জিসান বখতিয়ার বলেন, ‘স্থানীয় পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর পছন্দের প্রার্থী না থাকায় ভোটকেন্দ্রে আসায় তাদের অনেকটা অনাগ্রহ থাকবে। যদিও গুটিকয়েক ভোট পড়লেও পড়তে পারে। তবে অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।’ 

রাঙামাটি রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা বলেন, ‘প্রথমে রাঙামাটি আসনে পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। তার মধ্যে দুইজন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করায় সর্বশেষ তিনজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে সে তিন প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ছাড়া অন্য দুইজনের তেমন তৎপরতা ও প্রচারণা নেই। এদিকে জেএসএসের প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় এখন ভোটকেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি নিয়ে একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের প্রার্থী অমর কুমার দে বলেন, ‘যদি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়, সেক্ষেত্রে আমি অবশ্যই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।’ 

তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী মো. মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমার কোনো অভিযোগ নেই। পানির মতো স্বচ্ছ নির্বাচন হবে, সবাই খালি চোখে যা দেখতেছে সেভাবেই নির্বাচন হবে। এখানে হেভিওয়েট প্রার্থী বাঘের সঙ্গে শিয়াল বা মুরগি পিছন থেকে দৌড়াচ্ছেÑ এই হচ্ছে অবস্থা। নির্বাচন ওইভাবেই চলবে।’ 

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মুছা মাতব্বর বলেন, ‘আমরা জেলার ১০ উপজেলাসহ দুই পৌরসভায় নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ও জনসংযোগ চালিয়েছি। ভোটারদের আমরা ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। ভোটকেন্দ্রে যাতে ভোটার উপস্থিতি কম না হয়, সেক্ষেত্রে আমরা অবশ্যই নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়াব।’

রাঙামাটি জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু করতে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। রাঙামাটিতে এবার মোট ৪ লাখ ৭৯ হাজার ৩১৭ জন ভোটার রয়েছে। মোট ভোটকেন্দ্র রয়েছে ২১৩টি, তার মধ্যে ১৮টি দুর্গম হেলিসর্টি কেন্দ্র রয়েছে।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা