× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

বাজার দর

ছোলার দাম ১০ টাকা বেড়ে কমল ৫ টাকা

হুমায়ুন মাসুদ, চট্টগ্রাম

প্রকাশ : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ২১:০২ পিএম

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভোগ্যপণ্যের অন্যতম পাইকারি বাজার চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জে সরবরাহ স্বাভাবিক থাকার পরও জানুয়ারির শুরুতে হঠাৎ বাড়তে শুরু করে ছোলার দাম। ১৫ দিনের ব্যবধানে তখন কেজিতে দাম বেড়ে যায় ১০ টাকা। এরপর পুরো জানুয়ারি মাসে বাড়তি দামে বিক্রি হওয়ার পর চলতি মাসে কমতে শুরু করেছে। ১০ দিনের ব্যবধানে কমেছে কেজিতে ৫ টাকা। 

খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, জানুয়ারি মাসে বাজারে নতুন ছোলা প্রতিমণ বিক্রি হয় ৩ হাজার ৬০০ টাকায়। এখন বিক্রি হচ্ছে ৩ হাজার ৪০০ টাকায়। অন্যদিকে পুরাতন ছোলা প্রতিমণ বিক্রি হয়েছিল ৩ হাজার ২০০ টাকায়। এখন বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার ৯৫০ থেকে ৩ হাজার টাকায়। 

এই হিসেবে এখন প্রতি কেজি নতুন ছোলা বিক্রি হচ্ছে ৯১ টাকায়, জানুয়ারি মাসে এই ছোলা প্রতি কেজি বিক্রি হয়েছিল ৯৫ টাকায়। অন্যদিকে পুরাতন ছোলা প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়, জানুয়ারি মাসে এই ছোলা প্রতি কেজি বিক্রি হয়েছিল ৮৫ টাকায়। সরবরাহ স্বাভাবিক থাকার পাশাপাশি বাজারে ছোলা বেচাকেনা কমে যাওয়ায় এখন দাম কমতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, সরবরাহ স্বাভাবিক থাকলে রমজানে ছোলার দাম আরও কমবে।

খাতুনগঞ্জ আড়তদার সাধারণ কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘রমজানের এক মাস আগ থেকেই খাতুনগঞ্জে রমজানের পণ্য বেচাকেনা শুরু হয়। বিভিন্ন জেলার ব্যবসায়ীরা এসে রমজানের পণ্য কিনে নিয়ে যান। প্রতিবছর এমনটি হয়ে আসলেও এবার এখন পর্যন্ত বাজারে রমজানের পণ্য বেচাকেনা খুব একটা জমে ওঠেনি। বাজারে ক্রেতা অনেক কম। তাই সরবরাহের তুলনায় চাহিদা কম থাকায় এখন বাজারে ছোলার দাম কমছে। রমজানের বাজার মানুষ রমজানের আগেই করে, তাই এখন বেচাকেনা না হলে রমজানে বেচাকেনা আরও কমবে। চাহিদা কমে যাওয়ায় তখন বাজারে ছোলার দাম আরও কমে যাবে।’

বাজারে ছোলার কোনো সংকট নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। আগের বছরের তুলনায় এবার ছোলা আমদানি বেশি হওয়ায় বাজারে এবার ছোলার মজুদও বেশি। পাশাপাশি রমজান ঘিরে এখনও আমদানি হচ্ছে অনেক ছোলা। তাই ধারণা করা হচ্ছে এবার রমজানে ছোলার দাম আরও কমবে। 

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, দেশে ছোলার চাহিদা বছরে ১ লাখ ৫০ হাজার টন। এর মধ্যে শুধু রমজান মাসে চাহিদা থাকে প্রায় এক লাখ টন। সেই হিসেবে বছরে দেশে এক লাখ ৮০ হাজার থেকে দুই লাখ মেট্রিকটন ছোলা আমাদনি হয়।

বার্ষিক এই চাহিদার বিপরীতে গত দুই বছর ছোলা আমদানি হয়েছে অনেক বেশি। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, ২০২২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০২৩ সালের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এক বছরে দেশে ছোলা আমদানি হয়েছে ২ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন। অন্যদিকে ২০২৩ সালের ১ জানুয়ারি থেকে একই বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত গত এক বছরে দেশে ছোলা আমাদনি হয়েছে ২ লাখ ৯৪ হাজার মেট্রিকটন। এই হিসেবে আগের বছরের তুলনায় ২০২৩ সালে ৩৪ হাজার মেট্রিকটন ছোলা বেশি আমদানি হয়েছে। এর বাইরে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ছোলা আমদানি হয়েছে আরও ৬৬ হাজার ৩০ মেট্রিকটন।

খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, বেশিভাগ ছোলাই আসছে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৩ সালে দেশে আমদানি করা ২ লাখ ৯৪ হাজার টন ছোলার মধ্যে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে আমদানি হয়েছে ২ লাখ ৯৪৫ মেট্রিকটন। বাকি ৯৪ হাজার মেট্রিক টন ছোলার মধ্যে অধিকাংশ ছোলা আসে প্রতিবেশী দেশ ভারত এবং মিয়ানমার থেকে। মিয়ানমার থেকে যেসব ছোলা আমদানি হয়েছে তার সবগুলোই এসেছে ২০২৩ সালের মার্চ মাসে।

খাতুনগঞ্জের তৈয়্যবিয়া ট্রেডার্সের মালিক সোলায়মান বাদশা বলেন, ‘জিনিসপত্রের দাম বেড়ে যাওয়ায় মানুষের ক্রয়ক্ষমতা কমেছে। তাই মানুষ চাহিদার তুলনায় জিনিসপত্র কম কিনছে। দ্বিতীয়ত, সরকার শুল্ক কমানোসহ নানা ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ায় সাধারণ ভোক্তারা মনে করছেন সামনে জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে। তাই এখনই তারা জিনিসপত্র কিনছেন না।’

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা