× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

উপজেলা নির্বাচন

আ.লীগ সরবে, জামায়াত নীরবে, বিএনপি চুপ

তরিকুল ইসলাম মিঠু, যশোর

প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০২৪ ১৩:২৬ পিএম

আপডেট : ০৩ এপ্রিল ২০২৪ ১৩:৩৮ পিএম

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যশোরের মনিরামপুর উপজেলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী বেশ আগেই প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ ছাড়া জামায়াত নীরবে কাজ শুরু করলেও একেবারেই দেখা নেই বিএনপি নেতাকর্মীদের।

আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে মতবিনিময়, গণসংযোগ, লিফলেট বিতরণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। উপজেলার হাটবাজারগুলোয় সম্ভাব্য প্রার্থীরা তাদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে করছেন চা-চক্র।

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রথম ধাপেই আগামী ৮ মে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা মনিরামপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। ৩ লাখ ৫৫ হাজার ৯৭৯ জনের প্রতিনিধি কে হবেন এসব বিষয় নিয়ে বিশ্লেষণ চলছে সর্বমহলে।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, এবার উপজেলা চেয়ারম্যান পদে সম্ভাব্য প্রার্থী ছয়জন। প্রার্থীদের বেশিরভাগই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী হলেও জামায়াতের ১ জনের নাম শোনা যাচ্ছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা হলেন- বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমা খানম, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিকাইল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান খান এবং জামায়াতে ইসলামীর সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল হক।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে পুরুষ রয়েছেন চারজন। তারা হলেন- ছাত্রনেতা সন্দ্বীপ ঘোষ, খেদাপাড়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হক, মনজুরুল হক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শরিফুল ইসলাম এবং উপজেলা জামায়াতের শীর্ষ নেতা মাওলানা লিয়াকত হোসেন। এ ছাড়া মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের সম্ভাব্য প্রার্থী উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান কাজী জলি আক্তার, সুরাইয়া আক্তার ডেইজি, মাজেদা খাতুন, পাপিয়া জামান মিল্টন, আমেনা খাতুন এবং জামায়াতের মহিলা নেত্রী গুলবদন।

বর্তমানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমা খানম। তিনি আগামী নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে নিজেই জানিয়েছেন। এই লক্ষ্যে তিনি সাধারণ ভোটারদের সঙ্গে মতবিনিময় ও সভা করছেন। এর আগেও তিনি দুইবার উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নাজমা খানম চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করে বিজয়ী হন। দীর্ঘদিন উপজেলার দায়িত্বে থাকায় তিনি কিছুটা বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন, এমনটাই দাবি স্থানীয় ভোটারদের।

উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন লাভলু। তিনিও নির্বাচন করতে গণসংযোগ, মতবিনিময়সহ বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এ নেতা ১৯৯৯ সালে পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৪ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদেও তিনি বিজয়ী হন। আগামী নির্বাচনেও তিনি বিজয়ী হবেন এমন আশা নিয়ে নির্বাচনী কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

আলোচনার শীর্ষে থাকা সম্ভাব্য প্রার্থীদের একজন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন। এ লক্ষ্যে তিনি প্রতিনিয়ত উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলে সাধারণ মানুষের সঙ্গে মতবিনিময়, সভা-সেমিনার অব্যাহত রেখেছেন। বসে নেই উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিকাইল হোসেনও। তিনি চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ঘোষণা দিয়ে উপজেলার সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন। চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নিজের নাম ঘোষণা করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য হাবিবুর রহমান খানও। তিনিও উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ভোটারদের সঙ্গে মতবিনিময়সহ গণসংযোগ করে চলেছেন। 

এবারের নির্বাচনে জামায়াতে ইসলামীর সাবেক শীর্ষ নেতা ও উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফজলুল হকও চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে শোনা যাচ্ছে। এ বিষয়ে উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারি ডাক্তার শরিফুল ইসলাম জানান, জামায়াত সাংগঠনিকভাবে নির্বাচনে যাচ্ছে না। তবে ব্যক্তি হিসেবে ফজলুল হক এবং গুলবদন নির্বাচন করবেন বলে শুনেছি। 

স্থানীয় ভোটাররা বলছেন, মনিরামপুর উপজেলা জামায়াতের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের দুটি গ্রুপের মধ্যে বেশ মতপার্থক্য রয়েছে। যে কারণে আওয়ামী লীগ থেকে একাধিক প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নেবেন। অন্যদিকে জামায়াতে একমাত্র নেতা প্রভাষক ফজলুল হক নির্বাচনে অংশ নিলে নির্বাচনের প্রেক্ষাপট পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের ভরাডুবির সম্ভাবনাই বেশি।


শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা