× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

ধানের চারার হাট

মেহেদী হাসান শিয়াম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

প্রকাশ : ২৯ জানুয়ারি ২০২৪ ১০:২৬ এএম

আপডেট : ৩১ জানুয়ারি ২০২৪ ১৫:২৬ পিএম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শিমুলতলা হাটে ধানের চারা বেচাকেনায় ব্যস্ত কৃষক। প্রবা ফটো

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার শিমুলতলা হাটে ধানের চারা বেচাকেনায় ব্যস্ত কৃষক। প্রবা ফটো

দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে শিমুলতলায় ধানের চারার হাট। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার এই হাটে ধানের চারা কেনাবেচা করছে আশপাশের কয়েক জেলার কৃষক। একদিকে নায্য দামে চারা বিক্রি করতে পেরে খুশি বিক্রেতারা, অন্যদিকে ‘স্বল্পমূল্যে’ কিনতে পেরে লাভবান কৃষক। 

সরেজমিনে শিমুলতলার হাটে গিয়ে দেখা গেছে, পিকআপ, ভটভটি, ব্যাটারিচালিত ভ্যানে করে চারা আসছে; বিক্রি হচ্ছে। ৮০ আঁটিতে এক পৌন হিসেবে বিক্রি হচ্ছে এসব চারা। রকমভেদে পৌনপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায়।

আব্দুর রহিম নামে একজন কৃষক প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, বরেন্দ্র অঞ্চলের অনেক এলাকায় ধানের চারা তৈরি করতে গেলে পদে পদে বাধাগ্রস্ত হতে হয়। এ কারণে এখানকার কৃষক ধানের বীজতলা তৈরি করে না। শিমুলতলার হাট থেকে চারা কিনে লাগায় কৃষকরা। তিনি বলেন, সাধারণত ধনের চারা তৈরি করতে গেলে উন্নতমানের বীজ সংগ্রহ করে জমি প্রস্তুত করে বুনতে হয়। নিয়মমাফিক সেচসহ নানা শঙ্কা মাথায় নিয়েই ধানের চারা তৈরি হয়। এই চারা শ্রমিক দিয়ে তুলে আবার জমি প্রস্তুত করে লাগানো হয়। এতসব প্রক্রিয়ায় কৃষকের অনেক টাকা গচ্চা যায়। ঝুটঝামেলায় না গিয়ে সাধারণ কৃষক হাট থেকে চারা কিনে ধান লাগায়। এতে কৃষক লাভবান হয়।

ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, রাজশাহী, নওগাঁ ও বগুড়া জেলার লোকজন এখানে চারা বিক্রি করতে আসে নিয়মিত। প্রতি বছর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে শুরু হয়ে মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত বেচাকেনা চলে। জিরা, আটাশ, ছিয়াত্তরসহ বিভিন্ন ধানের চারা পাওয়া যায়। রাজশাহীর মোহনপুরের বাসিন্দা আব্দুল কাদের মণ্ডল বলেন, তিনি ২০ বছর ধরে এখানে ধানের চারা বিক্রি করছেন। রবিবার তিনি ২ হাজার ৫৬০ আঁটি জিরা ধানের চারা নিয়ে এসেছেন হাটে। দিনের চারা দিনেই বিক্রি হয়ে যায়। চারা বিক্রি নিয়ে কোনো ধরনের সমস্যা হয় না।

নওগাঁর মান্দা থেকে দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তি ধানের চারা বিক্রি করতে এসেছেন। তিনি বলেন, রাজশাহী, নওগাঁ বা বগুড়ায় ধানের চারার হাট নেই। শুধু চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিমুলতলায় আছে এই হাট। এখানে অনেক রকম ধানের চারা বিক্রি হয়।

শিমুলতলার ধানের হাট গত বছর থেকে ইজারা দিচ্ছে ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদ। ইজারাদারদের পক্ষে দেখভাল করছেন নাজিম উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি। তিনি বলেন, মাঘ মাস থেকে চৈত্র মাসের ১৫ তারিখ পর্যন্ত এ হাট বসে। টানা আড়াই মাস বেচাকেনা চলে ধানের চারা। প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ গাড়ি ধানের চারা বেচাকেনা হয়। ক্রেতা-বিক্রিতা উভয়েই লাভবান হয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জের কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা পলাশ সরকার এই হাট সম্পর্কে বলেন, বরেন্দ্র অঞ্চলের অনেক মানুষ বীজতলায় চারা প্রস্তুত করে বিভিন্ন হাটে বিক্রি করে থাকেন। এসব চারার গুণগত মান অনেক ভালো। তিনি কৃষকদের বেশি বয়সের চারা না কেনার পরামর্শ দিয়েছেন।

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা