× ই-পেপার প্রচ্ছদ জাতীয় রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত ফিচার শিল্প-সংস্কৃতি ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লাইভ লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

বিচারককে গালিগালাজ : ভিডিও অপসারণের নির্দেশ

প্রবা প্রতিবেদক

১৭ জানুয়ারি ২০২৩ ১১:৪৪ এএম । আপডেট : ১৭ জানুয়ারি ২০২৩ ১২:৩৯ পিএম

ফাইল ফটো

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের এক বিচারককে কয়েকজন আইনজীবীর অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও অশালীন আচরণের ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোহাম্মদ ফারুকের ওই ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে অপসারণের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বিটিআরসিকে দ্রুত এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।’

এর আগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মোহাম্মদ ফারুককে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও অশালীন আচরণের ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে একটি আবেদন হাইকোর্টে পাঠানো হয়। প্রধান বিচারপতির নির্দেশে রেজিস্ট্রার জেনারেল ওই বিচারকের অভিযোগ বিচারপতি জেবিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে পাঠান।

হাইকোর্টে পাঠানো ওই আবেদনে বলা হয়নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিচারক মোহাম্মদ ফারুকের পাঠানো চিঠিতে জানানো হয়েছে যে, তিনি গত ২ জানুয়ারি পূর্বাহ্ণে যথাসময়ে বিচারকাজ পরিচালনার জন্য এজলাসে ওঠেন। এ সময় তিনি দৈনন্দিন কার্যতালিকায় নির্ধারিত মামলাগুলো শুনানির জন্য গ্রহণ করেন। এজলাস চলাকালে বার সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. তানভীর ভূঞা, সম্পাদক (প্রশাসন) অ্যাডভোকেট মো. আক্কাস আলী, অ্যাডভোকেট জুবায়ের ইসলামসহ আনুমানিক ১০-১৫ জন আইনজীবী আসেন। তারা অশালীন ও অসৌজন্যমূলকভাবে তাকে এজলাস থেকে নেমে যেতে বলেন। বারের সভাপতি আদালতকে উদ্দেশ করে উচ্চৈঃস্বরে অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দ করেন। এ সময় এজলাসে কোর্ট ইন্সপেক্টর, আদালতের নিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ সদস্য, আদালতের কর্মচারী ও বিচারপ্রার্থী জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের মধ্য থেকে একজন ঘটনাটি ভিডিও করেন। পরে ভিডিওটি ওই বিচারকের হস্তগত হয়। দরখাস্তের অংশ হিসেবে ভিডিও ক্লিপটি তিনি আবেদনের সঙ্গে সংযুক্ত করেছেন।

হাইকোর্টে পাঠানো আবেদনে আরও বলা হয়‘ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতিসহ অন্য আইনজীবীদের এজলাস চলাকালে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও অশালীন আচরণের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারকদের নিরাপত্তা, বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি এবং শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে উক্ত অভিযোগের বিষয়টি নিষ্পত্তি হওয়া আবশ্যক।’

এজলাস চলাকালে আদালতে বিচারক ও কর্মচারীদের অশ্রাব্য ভাষায় গালমন্দ ও অশালীন আচরণের জন্য আদালত অবমাননার দায়ে ব্যবস্থা নিতে বুধবার (৪ জানুয়ারি) প্রধান বিচারপতি হাইকোর্টে ওই আবেদনটি নিষ্পত্তির জন্য পাঠান। পরদিন (৫ জানুয়ারি) ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলা আইনজীবী সমিতির (বার) সভাপতি অ্যাডভোকেট তানভীর আহমেদ ভূঞা, সম্পাদক (প্রশাসন) অ্যাডভোকেট মো. আক্কাস আলী ও অ্যাডভোকেট জুবায়ের ইসলামকে ১৭ জানুয়ারি তলব করেন হাইকোর্ট। বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন।

শেয়ার করুন-

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯, +৮৮০১৮১৫৫৫২৯৯৭ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা