× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার চট্টগ্রাম ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

তীব্র শীত

কুড়িগ্রাম পঞ্চগড় চুয়াডাঙ্গায় স্কুল বন্ধ

প্রবা প্রতিবেদন

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি ২০২৪ ১৩:৩৭ পিএম

আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২৪ ১৫:২০ পিএম

কুড়িগ্রাম সদরে অবস্থিত জনতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। প্রবা ফটো

কুড়িগ্রাম সদরে অবস্থিত জনতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। প্রবা ফটো

তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যাওয়ায় তীব্র শীতে সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) কুড়িগ্রাম ও পঞ্চগড় জেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বিভাগ। এ ছাড়া চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে না নামলেও বৃষ্টিতে ঠান্ডা বেড়ে যাওয়ায় জেলার মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে দুপুর ১টার দিকে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোয় ছুটি দেওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। চুয়াডাঙ্গায় কিছু জায়গায় গতকাল রাত থেকে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে।

আজ কুড়িগ্রাম জেলায় দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড হয়েছে।

জেলার রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবলচন্দ্র সরকার বলেন, জেলাটিতে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থা আরও দুয়েক দিন থাকতে পারে।

এ পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে জেলা শিক্ষা অফিসার মো. শামসুল আলম প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নামায় মাউশির সিদ্ধান্ত মোতাবেক মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে চিঠি ইস্যু করা হচ্ছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি বা তার ওপরে গেলে আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত জানাব।’

একই সিদ্ধান্তের কথা জানান জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. নবেজ উদ্দিন সরকার।

তবে উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান বন্ধের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত পাওয়া যায়নি বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

ক্লাস শুরুর পর ঘোষণা আসে ছুটির

আজ সকালে পঞ্চগড়ের স্কুলগুলোয় যথাসময়ে ক্লাস শুরু হয়। জানা গেছে, ক্লাস শুরুর পর সকাল ১০টায় জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস পৃথক চিঠির মাধ্যমে স্কুল বন্ধ ঘোষণা করে। বন্ধ করে দেওয়া হয় পাঠদান।

দুপুরে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুজ জামান ও জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল মালেক প্রতিদিনের বাংলাদেশকে এ তথ্য জানান।

সদর উপজেলার মালাদাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘সকাল থেকে আমাদের বিদ্যালয়ে পাঠদান চলেছে। তবে সকাল ১০টার পর জানতে পারলাম শীতের কারণে বিদ্যালয়গুলোয় পাঠদান বন্ধ রাখতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস চিঠি ইস্যু করেছে। পরে আমরা চিঠি পেয়ে পাঠদান বন্ধ করে শিক্ষার্থীদের বাসায় পাঠিয়ে দিয়েছি।’

দেবীগঞ্জ উপজেলার কালীগঞ্জ সুকাতু প্রধান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোরঞ্জন চন্দ্র রায় বলেন, ‘শীতের কারণে পঞ্চগড়ের মানুষসহ শিক্ষার্থীরা খুব ভোগান্তিতে পড়েছে। শীতে ক্লাস নিতে আমাদেরই কষ্ট হয়। শিক্ষার্থীদের তো আরও বেশি কষ্ট হয়। সকাল থেকে আমাদের পাঠদান চলেছে। তবে বৃহস্পতিবার পঞ্চগড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নামায় জেলায় পাঠদান বন্ধ রাখতে মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস চিঠি ইস্যু করেছে শুনেছি। তবে চিঠি হাতে এখনও পাইনি। আমাদের বই বিতরণ চলছে তো তাই স্কুল খোলা আছে। তবে শিক্ষার্থীরা বই নিয়ে বাড়ি চলে যাচ্ছে।’

জেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুজ জামান বলেন, ‘জেলার তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির তাপমাত্রা নামলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোয় পাঠদান বন্ধ রাখতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা রয়েছে। সে কারণে আমরা বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়গুলোয় পাঠদান বন্ধ রাখতে চিঠি ইস্যু করেছি। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর অফিস খোলা থাকবে।’

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুল মালেক বলেন, ‘আজকের তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নামায় জেলায় পাঠদান বন্ধ রয়েছে। তবে অফিস খোলা থাকবে। এ ছাড়া সামনের দিনগুলোয় তাপমাত্রা যদি ১০ ডিগ্রির নিচে থাকে তাহলে সে অনুযায়ী আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

চুয়াডাঙ্গায় বৃষ্টিতে ঠান্ডায় বন্ধ মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল

এদিকে চুয়াডাঙ্গায় বুধবার রাতে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। ভোরের দিকে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বেড়ে যায়। জেলার আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার জানায়, সকাল ৮টা ১০ মিনিট পর্যন্ত মোট ১৯ দশমিক ৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়।

জেলায় সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ১১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। এ সময় বাতাসের আর্দ্রতা ছিল ৯২ শতাংশ।

জেলাটিতে বৃষ্টির সঙ্গে মাঘের হিমেল হাওয়া শীতের তীব্রতা বাড়িয়ে দিয়েছে। এতে হাড়কাঁপানো শীতে বেকায়দায় পড়েছে শিশু-বৃদ্ধসহ খেটে খাওয়া মানুষ। প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বেরোচ্ছে না তারা।

আগামীকাল তাপমাত্রা আরও কমতে পারে জানিয়ে চুয়াডাঙ্গা আঞ্চলিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার কেন্দ্রের ইনচার্জ জামিনুর রহমান প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, শীতের তীব্রতা বেড়ে যাবে।

এমন পরিস্থিতিতে জেলার মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো আজ এক দিনের জন্য ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আতাউর রহমান প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘বৃষ্টিপাতের কারণে শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় শুধু আজকের জন্য জেলার ১৪১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৩৯টি দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজ সকাল ১০টায় বিদ্যালয়গুলোয় বার্তা আসে। এরপর শিক্ষার্থীদের ছুটি দেওয়া হয়। তবে শিক্ষক-শিক্ষিকা ও কর্মচারীরা বিদ্যালয়ে আছেন। কেবল শিক্ষার্থীদের ছুটি দেওয়া হয়েছে। তবে প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোয় ছুটি দেওয়া হয়নি।’

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তবিবুর রহমান বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা আছে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নামলে বিদ্যালয় বন্ধ থাকবে। কিন্তু আজ চুয়াডাঙ্গায় সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় জেলার সাধারণ তাপমাত্রা ছিল ১৩ দশমিক ৭ ডিগ্রি।’

প্রতিবেদন তৈরিতে তথ্য পাঠিয়েছেন কুড়িগ্রাম, পঞ্চগড় ও চুয়াডাঙ্গা প্রতিবেদক

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: protidinerbangladesh.pb@gmail.com

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: pbad2022@gmail.com

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: pbonlinead@gmail.com

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: pbcirculation@gmail.com

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা