× ই-পেপার প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি দেশজুড়ে বিশ্বজুড়ে বাণিজ্য খেলা বিনোদন মতামত চাকরি ফিচার ভিডিও সকল বিভাগ ছবি ভিডিও লেখক আর্কাইভ কনভার্টার

বিশিষ্টজনদের বার্তা

গণতন্ত্র রক্ষায় সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ, চরমপন্থা নিয়ে তৎপর বিদেশি শক্তি

প্রবা প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৫:৫২ পিএম

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৭:১৮ পিএম

যুক্তরাজ্যের হাউস অব লর্ডসে সোমবার ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে স্টাডি সার্কেল লন্ডন।

যুক্তরাজ্যের হাউস অব লর্ডসে সোমবার ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে স্টাডি সার্কেল লন্ডন।

ধর্মনিরপেক্ষ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ প্রতিষ্ঠায় উৎসাহিত করে বাংলাদেশ। তবে সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানোর জন্য এ দেশে কিছু ইসলামী গোষ্ঠীর প্রচেষ্টা রয়েছে। এমতাবস্থায় চরমপন্থাকে মূলধারায় নিয়ে আসার জন্য সুবিধাবাদী বিদেশি শক্তির তৎপরতায় বাংলাদেশে গণতন্ত্র হুমকির সম্মুখীন। এরপরও সেসব চাপ উপেক্ষা করে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার রক্ষায় অঙ্গীকারবদ্ধ এবং উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে সচেষ্ট রয়েছে সরকার।

ওয়েস্টমিনস্টারে যুক্তরাজ্যের হাউস অব লর্ডসে সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এসব মতামত দেন দেশি-বিদেশি কূটনীতিকরা। ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র ও মানবাধিকার’ শীর্ষক এই সভার আয়োজন করে স্টাডি সার্কেল লন্ডন।

হাউস অব লর্ডস অ্যাটলি ও রিড রুমে অনুষ্ঠিত সভায় যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের রাজনীতিবিদ, কূটনীতিক ও স্থানীয় নেতারা আলোচনা করেন। সভাপতিত্ব করেন কিংসক্লেরের লর্ড ডেনিয়েল হান্নান; যিনি নিজেকে ‘বাংলাদেশের আত্মার বন্ধু’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। সভায় তিনি বাংলাদেশকে দেওয়া যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন বাণিজ্যিক সুবিধা নিয়ে কথা বলেন।

এতে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আন্তর্জাতিকবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, যুক্তরাজ্যের সংসদ সদস্য মার্টিন ডে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্যের সংসদ সদস্য টিমোথি লোউটন ও ফরেন, কমনওয়েলথ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অফিসের (এফসিডিও) প্রতিনিধিরা। দেশটির অনেক সংসদ সদস্য এই অনুষ্ঠানকে সমর্থন করে শুভেচ্ছা জানান।

বক্তারা বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ধর্মনিরপেক্ষ দেশের স্বপ্ন এবং সংখ্যালঘুদের সুরক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গৃহীত পদক্ষেপের ওপর আলোচনা করেন। তারা বলেন, সাম্প্রদায়িক উত্তেজনা ছড়ানোর জন্য দেশের কিছু ইসলামী গোষ্ঠীর প্রচেষ্টার কারণে এই সম্প্রীতি হুমকির সম্মুখীন হয়েছিল। এটি প্রতিরোধ করার জন্য সতর্ক থাকার প্রয়োজন ছিল।

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের মধ্যে শক্তিশালী বাণিজ্য সম্পর্কের ওপর জোর দিয়ে বলেন, ‘আমরা অভিন্ন মূল্যবোধ অনুসরণ করে ধর্মনিরপেক্ষ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক সমাজ প্রতিষ্ঠায় উৎসাহিত করি। আমাদের লড়াই ধর্মনিরপেক্ষ ও সাম্প্রদায়িক শক্তির মধ্যে। যুক্তরাজ্যের কাছে আমার বার্তা হলো– আপনি কোনটি বেছে নেবেন? অবশ্যই ধর্মনিরপেক্ষতা [এটি সুস্পষ্ট]।’

এ মাসের শুরুতে নয়াদিল্লিতে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাকের মধ্যে বৈঠক এবং উষ্ণ মুহূর্তটির কথা উল্লেখ করেন হাইকমিশনার। তিনি গর্বিত বোধ করেন, কারণ এটি ছিল দুই নেতার মধ্যে দ্বিতীয় বৈঠক। প্রথমবার বৈঠক হয়েছিল এ বছরের শুরুতে রাজা তৃতীয় চার্লসের রাজ্যাভিষেকের সময়।

তিনি আরও উল্লেখ করেন, সাম্প্রতিক এয়ারবাস চুক্তিটি যুক্তরাজ্যের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ ছিল। কারণ এয়ারবাসগুলো ব্রিটিশ রোলস রয়েস ইঞ্জিন দিয়ে সজ্জিত।

প্রধান বক্তা ড. মিজানুর রহমান বলেন, “যখন সুবিধাবাদী বিদেশি শক্তি চরমপন্থাকে মূলধারায় নিয়ে আসে, তখন তা আমাদের গণতন্ত্রকে হুমকির মুখে ফেলে। আসুন, গণতন্ত্রের মৃত্যু ঠেকাতে হাতে হাত রাখি। বাংলাদেশের জনগণকে জানান যে আমি দেশে ফিরে বলব, ‘যুক্তরাজ্য আমাদের সঙ্গে আছে এবং আমাদের পাশে আছে।”

গওহর রিজভী বলেন, ‘আমি একটি বিষয় মনে করিয়ে দিতে চাই, এখনও আমাদের ওপর চাপ রয়েছে। তবুও আমরা গণতন্ত্র রক্ষায় ও উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে চেষ্টা করে যাচ্ছি।’

শেয়ার করুন-

মন্তব্য করুন

Protidiner Bangladesh

সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি

প্রকাশক : কাউসার আহমেদ অপু

রংধনু কর্পোরেট, ক- ২৭১ (১০ম তলা) ব্লক-সি, প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড) ঢাকা -১২২৯

যোগাযোগ

প্রধান কার্যালয়: +৮৮০৯৬১১৬৭৭৬৯৬ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (প্রিন্ট): +৮৮০১৯১১০৩০৫৫৭, +৮৮০১৯১৫৬০৮৮১২ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন (অনলাইন): +৮৮০১৭৯৯৪৪৯৫৫৯ । ই-মেইল: [email protected]

সার্কুলেশন: +৮৮০১৭১২০৩৩৭১৫ । ই-মেইল: [email protected]

বিজ্ঞাপন মূল্য তালিকা